> অনলাইনে জমির খতিয়ান দেখার নিয়ম ~ পিসি বাংলাদেশ

রবিবার, ২৬ জানুয়ারী, ২০২০

অনলাইনে জমির খতিয়ান দেখার নিয়ম

অনলাইনে খতিয়ান দেখার নিয়ম

 অনলাইনে মাত্র কয়েক মিনিটের মধ্যেই জমির খতিয়ানের কপি সংগ্রহ করা যাবে। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের A to I প্রকল্পের সহায়তায় এই পদ্ধতিতে land.gov.bd অথবা  rsk.land.gov.bd অথবা www.minland.gov.bd ওয়েব সাইট বা মোবাইল ফোনে অ্যাপের মাধ্যমে অনলাইন থেকে খতিয়ানের কপি সংগ্রহ করা যাবে।
অনলাইনে খতিয়ান দেখার নিয়ম


 সচিবালয়ে ‘হাতের মুঠোয় খতিয়ান’ এই স্লোগানে ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ আরএস খতিয়ান অনলাইনে অবমুক্তকরণ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন।এতে করে খুব সহজে অনলাইন থেকে জমির দলিল যাচাই, অনলাইনে জমির মালিকানা যাচাই, অনলাইনে জমির পর্চা,অনলাইনে খতিয়ান বের করা, অনলাইন খতিয়ান যাচাই ইত্যাদি সেবা পাওয়া যাবে। 

আমাদের দেশের তিন পার্বত্য জেলা ছাড়া  প্রায় ৬১ হাজার ৫০০ মৌজা বিদ্যমান রয়েছে। এর মধ্যে প্রায় ৪১ হাজার মৌজার জরিপ ইতিমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে, এর মধ্যে প্রায় ৩২ হাজার মৌজার জরিপে প্রকাশিত প্রায় এক কোটি ৪৬ লাখ আরএস খতিয়ানের সকল তথ্য অনলাইনের মাধ্যমে পাওয়ার সুযোগ  হয়েছে।

যেভাবে অনলাইনে পাওয়া যাবে খতিয়ান: 

অনলাইনের মাধ্যমে জমির খতিয়ান সংগ্রহের জন্য ওয়েবসাইটে সকল নাগরিকের জন্য রয়েছে নাগরিক কর্ণার । তর্থ্য  অনুসন্ধানের জন্য আপনাকে নির্ধারিত বিভাগ, জেলা, উপজেলা এবং মৌজা বাছাই করতে হবে। খতিয়ান নাম্বার বা দাগ নাম্বার বা মালিকের নাম অথবা মালিকের পিতা বা স্বামীর নাম দিয়ে খতিয়ান অনুসন্ধান করা যাবে।তাছাড়া খতিয়ানের সার্টিফাইড কপির জন্য আপনি অনলাইনে আবেদন, আবেদন নিষ্পত্তি বিষয়ে ট্র্যাকিং এবং কর্তৃপক্ষ কর্তৃক মনিটরিং করার সুবিধা রয়েছে। অনলাইনে খতিয়ানের কপি পেতে হলে অনলাইনে আবেদন করার সময় আপনার নাম, জাতিয় পরিচয়পত্র নাম্বার, ফোন নাম্বার ইত্যাদি তথ্য আপনাকে অবশ্যই দিতে হবে। তথ্য দেয়ার পর আপনাকে মোবাইল ব্যাংকিং অথবা অনলাইন ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে খতিয়ানের জন্য নির্ধারিত ফি দিতে হবে। ফি পরিশোধের পর অনলাইন কপি সংগ্রহ করতে চাইলে সরাসরি অনলাইন কপি প্রিন্ট করে নিতে পারবেন।

সার্টিফাইড আর এস খতিয়ানের কপি পাওয়ার জন্য আবেদনের সময় নাগরিকের তথ্য প্রদানের পর  খতিয়ানের জন্য ফি দিতে হবে। ফি জমা দেয়ার পর সার্টিফাইড কপির জন্য আপনার নাম, জাতীয় পরিচয়পত্র, ই-মেইল, মোবাইল নাম্বার, ট্রানজেকশন আইডি ও ডাকযোগে যোগাযোগের জন্য ঠিকানা ইত্যাদি দিয়ে অনলাইনে আবেদন করতে হবে। এরপর আপনাকে সংশ্লিষ্ট জেলা অফিস থেকে বা আবেদনকারীর প্রত্যাশিত ঠিকানায় ডাকযোগে নির্দিষ্ট দিনের মধ্যে আরএস খতিয়ানের সার্টিফাইড কপি সরবরাহ করা হবে।

আরো দেখুনঃ

0 comments:

Get Blogger TipsComment here

No Spam Link is Allowed